ঘরে বসে হাতে লিখে আয় [মাসে ২০ হাজার টাকা আয় করার উপায়]

ঘরে বসে হাতে লিখে আয় [মাসে ২০ হাজার টাকা আয় করার উপায়]

আপনার প্যাশন যদি হয় লেখালেখি, তাহলে ঘরে বসে হাতে লিখেই আয় করতে পারবেন প্রতি মাসে নূন্যতম ২০ হাজার টাকা। কিন্তু কিভাবে সেটা সম্ভব? ঘরে বসে হাতে লিখে সত্যিই কি আয় করা যায়? কি কাজ করবেন? কাদের জন্য করবেন? প্রশ্ন আসাটাই স্বাভাবিক! আপনার সেই সব প্রশ্নের উত্তর নিয়েই আমাদের আজকের আলোচনার বিষয়- ঘরে বসে হাতে লিখে অফলাইনে অথবা অনলাইনে অনলাইনে মাসে ২০ হাজার টাকা আয় করার উপায়।

বর্তমানে অনলাইন থেকে টাকা আয় করার বেশ কিছু উপায় রয়েছে। তবে এগুলোর মধ্যে অনলাইনে লেখালেখি করে আয় করাটা বেশি জনপ্রিয়তা পেয়েছে। কারন, ঘরে বসে হাতে লিখে আয় করার জন্য লেখালেখি একে তো উপভোগ্য, অন্যদিকে লাভজনক।

আমাদের মধ্যে এমন অনেক ছাত্র, কর্মজীবী কিংবা গৃহিণী আছেন যারা অনেকেই শখের বশে লেখালেখি করেন। আর এই লেখার মান যদি ভাল হয় তাহলে শখের কাজ থেকেই কিন্তু আয় করাও সম্ভব। আর ঘরে বসে হাতে লিখে আয় করার জন্য লেখালেখি এক কথায় দারুণ।

আরও পড়ুন-

অনলাইন কিংবা অফলাইন, লেখালেখি করে আয় করতে পারবেন দু’ভাবেই। আর আপনার লেখা প্রিন্টে বা অনলাইনে প্রকাশিত হলে আপনি কিন্তু সবার কাছ থেকে পাবেন একটু বাড়তি কদর।

তাই মানসম্মত লেখা ও ভাল পরিমাণ টাকা আয় করতে একটি গাইডলাইন তো আপনার অবশ্যই দরকার। এজন্য ঘরে বসে হাতে লিখে আয় করার ও সফল হবার উপায় গুলো সম্পর্কে জানতে সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি এখনই পড়ে নিন।

ঘরে বসে হাতে লিখে আয় করার উপায়

আপনি অফলাইন অথবা অনলাইন লেখালেখির মাধ্যমে আয় করতে পারবেন। দেশের মধ্যেই অসংখ্য পত্রিকা, ম্যাগাজিন রয়েছে যেখানে আর্টিকেল লিখে আয় করা সম্ভব। আর অনলাইনে লেখালিখি করে আয় করার ফিল্ড বর্তমানে ব্যাপক।

আপনি চাইলে নিজস্ব ওয়েবসাইটে লেখালেখি করতে পারেন, অন্য কারো ব্লগের জন্য লিখতে পারেন। তবে সবচেয়ে লাভবান হওয়ার জন্য ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস এ কন্টেন্ট রাইটিং শুরু করা যেতে পারে।

মোট কথা লেখালেখি করে আয় করার অনেক উপায় আছে। আমাদের দেওয়া তথ্য থেকে খুঁজে নিন আপনি কোন উপায়ে আয় করতে চান।

ব্লগিং করে মাসে ২০ হাজার টাকা আয় করার উপায়

ঘরে বসে হাতে লিখে আয় করার উপায়
Image by StockSnap from Pixabay

ব্লগিং কিন্তু আজকাল খুবই জনপ্রিয় এবং চাহিদাসম্পন্ন একটি ইনকাম সোর্স। একটি টপিকের ওপর লেখালেখি, তথ্য ও খবরাখবর প্রকাশ, নিজস্ব ভাব প্রকাশের অনলাইন প্লাটফর্ম, প্রভৃতি হল ব্লগিং। ব্লগিং করে মাসে ২০ হাজার টাকা আয় করতে হলে আপনাকে যেসব বিষয় গুলো জানতেই হবো-

ব্লগিং কিভাবে শুরু করবেন?

ব্লগিং শুরু করার প্রথম ধাপ হল লেখালেখি করার একটি ডিজিটাল মাধ্যম বাছাই করা। এটি হতে পারে আপনার হাতে থাকা-

  • স্মার্টফোন,
  • কম্পিউটার,
  • ল্যাপটপ কিংবা
  • ট্যাব।

এরপর দরকার হবে ফাস্ট ইন্টারনেট সার্ভিস, যাতে আপনি অনলাইন প্লাটফর্ম গুলোর সাথে যুক্ত হতে পারেন।

পরবর্তীতে দরকার হতে পারে লেখালেখি প্রকাশ করার জন্য একটি ওয়েবসাইট বা ব্লগার অ্যাকাউন্ট; যে মাধ্যমে আপনি লেখালেখি করার পর Publish করা শুরু করবেন।

ব্লগিং করে আয় করার উপায়

আপনার ওয়েবসাইটকে বিভিন্ন ভাবে মনিটাইজ করে আয় করতে পারবেন। ব্লগিং করে আয় করার বেশ কিছু উপায় হল –

গুগল এডসেন্স (Google AdSense) থেকে আয় করার উপায়

একটি ব্লগ সাইট থেকে আয় করার অনেক গুলো উপায় আছে। তারমধ্যে সবচেয়ে বেশি প্রচলিত হলো Google Adsense.

গুগল অ্যাডসেন্স প্রোগ্রামে যুক্ত হয়ে  মূলত আপনি আপনার ওয়েবসাইট বা ব্লগে গুগল সরবরাহকৃত অ্যাড বসিয়ে টাকা আয় করতে পারবেন। এর জন্য প্রথমত আপনার লেখা কন্টেন্টগুলো আপনার ওয়েবসাইটে পাবলিশ করবেন। এরপর বিভিন্ন উপায়ে অরগানিক ভিজিটর জোগাড় করবেন। এক্ষেত্রে অবশ্য আপনার লেখার দক্ষতার ওপরেও কিন্তু বেশিরভাগ ট্রাফিক প্রাপ্তিটা নির্ভর করবে।

সাইটে পর্যাপ্ত ভিজিটর আসা শুরু করলে গুগল অ্যাডসেন্স এর অ্যাপ্রুভাল নিয়ে অ্যাডসেন্স কোড সাইটের দর্শনীয় প্লেসমেন্ট বা অবস্থানে বসিয়ে দিন। ফলশ্রুতিতে আপনার দর্শকদের ব্যবহার করে সাইটে গুগল অ্যাডসেন্স এর বিজ্ঞাপন প্রচার করে বেশ ভালো অংকের টাকা আয় করতে পারবেন।

এমনকি একটু পরিশ্রম করে নূন্যতম ১ বৎসর নিয়মিত কাজ করে যেতে পারলে একটা সময়ে প্রতি মাসে ২০ হাজার টাকার উপরেও অনায়াসে আয় করা সম্ভব। গুগল অ্যাডসেন্স এর মাধ্যমে উপার্জন করা টাকা পরবর্তী মাসের ২১ তারিখের পর সরাসরি নিজের ব্যাংক একাউন্টে Wire Transfer এর মাধ্যমে টাকা গ্রহণ করে উইথড্র করতে পারবেন।

সফল ব্লগ রাইটার কিভাবে হবেন?

সফল ব্লগ রাইটার হবার জন্য নিচের নির্দেশনাসমূহ মেনে চলতে পারেন। আশা করি খুব কাজে আসবে।

  • অবশ্যই SEO (Search Engine Optimization) ফ্রেন্ডলি আর্টিকেল পাবলিশ করুন।
  • প্রথম প্রথম প্রতিদিন কমপক্ষে একটি লেখা পাবলিশ করুন।
  • এক মাসের মধ্যেই পর্যাপ্ত আর্টিকেল লেখুন ও অর্গানিক ভিজিটর জোগাড় করুন।
  • পর্যাপ্ত ভিজিটর নিয়মিত সাইট ভিজিট করতে থাকলে গুগল অ্যাডসেন্স এর জন আবেদন করুন।
  • ভিজিটর বাড়াতে ও ধরে রাখতে অবশ্যই কোয়ালিটি কন্টেন্ট পাবলিশ করুন।

পেইড রিভিউ রাইটিং করে আয়

পেইড রিভিউ রাইটিং ঘরে বসে হাতে লিখে আয় করার জন্য একটি দারুন আইডিয়া। কারণ এটি খুবই লাভজনক একটি আয়ের মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার ওয়েবসাইটে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান, কোম্পানির প্রোডাক্টের রিভিউ আর্টিকেল প্রকাশ করবেন। আপনার লেখার মান বা দক্ষতাকে কাজে লাগিয়ে বেশি বেশি ভিজিটর এর দৃষ্টি আকর্ষণ করার চেষ্টা করবেন।

মোট কথা, আপনার লেখা এমন হতে হবে যেন ভিজটররা আপনার লেখা দেখে আপনার রিভিউ করা প্রোডাক্ট কেনার জন্য আগ্রহী হয়। এইভাবে শুধুমাত্র পেইড রিভিউ লিখেই অনলাইনে আয় করা সম্ভব।

অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করে আয় (মাসে ২০ হাজার টাকা বা তারও বেশী আয় করার উপায়)

আপনি আপনার ওয়েব সাইটে বিভিন্ন কোম্পানির পণ্যের বিজ্ঞাপন দিতে পারেন। আপনার রেফার করা লিংক থেকে কেউ প্রোডাক্ট কিনলে সাথে সাথে আপনি কমিশন পেয়ে যাবেন৷ ব্লগিং জগতে এটি কিন্তু এখনও খুবই জনপ্রিয় একটি ইনকাম সোর্স।

অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করে অনলাইনে ইনকাম করার সবচাইতে জনপ্রিয় ও গ্রহণযোগ্য প্লাটফর্ম হচ্ছে অ্যামাজন। অ্যামাজন অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করে সমগ্র বিশ্বের অগণিত অনলাইন মার্কেটার প্রতি মাসে ২০ হাজার টাকা বা তার চাইতেও অনেক বেশী পরিমানে আয় করে চলেছেন। আপনিও ইচ্ছে করলে একটু ধৈর্য ধরে সঠিক গাইডলাইন অনুসরণ করে নিয়মিত কাজ করে যেতে পারলে একটা সময়ে অভিষ্ট লক্ষ্য অর্জন করা খুবই সম্ভব।

বিস্তারিত গাইডলাইন পাবেন এখানে-

অ্যামাজন অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করে অনলাইনে আয় করার উপায়

লোকাল বিজ্ঞাপন প্রচার করে আয়

আপনার সাইটটিতে আপনি আপনার আশেপাশের চেনা-পরিচিত বা স্থানীয় কোনো প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন প্রকাশ করতে পারেন। কোম্পানি গুলো তাদের পন্যের প্রচারণার জন্য আপনাকে পেমেন্ট করবে। আপনি আপনার মত অনলাইনে কন্টেন্ট পাবলিশ করবেন। আর এখানে যে বিজ্ঞাপন শো করবে এদের ভিউ এর জন্য আপনি টাকা পাবেন।

কন্ট্রাক্ট রাইটার / ফ্রিল্যান্সিং করে আয়

আপনার লেখালেখির দক্ষতা দিয়ে শুধু পার্সোনাল ব্লগ ছাড়াও আরো অনেক ভাবে আয় করতে পারবেন। সেই পদ্ধতিগুলোর একটি হল অনলাইন মার্কেটপ্লেস। অনলাইনে এখন প্রচুর ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস রয়েছে। যেখানে আপনি আপনার স্কিল দিয়ে ঘরে বসেই আয় করতে পারবেন।

আর এসব ফ্রিল্যান্সিং প্লাটফর্মে ঘরে বসে হাতে লিখে আয় করার জন্য আছে রাইটিং রিলেটেড হাজার হাজার কাজ। আপনার ইংরেজি রাইটিং দক্ষতা যদি ভাল মানের হয় তাহলে কাজ করতে পারবেন দেশের বাইরেও।

ফাইবার, আপওয়ার্ক, ফ্রিল্যান্সার, আইরাইটার প্রভৃতি বড় বড় সব ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসেই পেয়ে যাবেন লেখালেখি নিয়ে প্রচুর কাজ। আপনি চাইলে লেখালেখি করে সবচেয়ে বেশি আয় করে নিতে পারেন এসব মার্কেটপ্লেস থেকে। কেননা, এখান থেকে লেখার মান ভাল হলে প্রতিটি আর্টিকেলের জন্য ৫০ থেকে ১০০০ ডলারও আয় করা সম্ভব হবে।

আর্টিকেল লিখে আয় করার ওয়েবসাইট

ঘরে বসে হাতে লিখে আয় করার অনেক উপায় তো জানলেন। এবার জানুন এমন কিছু ওয়েব সাইট সম্পর্কে যেখানে আপনি অনলাইনে লেখালেখি করে আয় করতে পারেন। দেশি বিদেশি অনেক ওয়েবসাইট আছে যারা আপনাকে কন্ট্রাকে কিংবা নিজেদের সাইটে লেখার সুযোগ দিবে।

আর্টিকেল লিখে আয় করার কিছু ওয়েবসাইট-

বাংলা আর্টিকেল লেখার সাইট

আপনি যদি অনলাইনে লেখালেখি করে বিকাশে পেমেন্ট পেতে চান তাহলে আপনার জন্য আছে বেশ কিছু দেশি ওয়েবসাইট। যেখানে আপনি স্বাচ্ছন্দ্যে আপনার নিজের ভাষায় লেখালেখি করতে পারবেন।

তেমনি কিছু ওয়েবসাইট হচ্ছে-

• ইনকাম টিউনস
• টেক টিউনস
• অর্ডিনারী আইটি
• গ্রাথর
• রোর বাংলা
• প্রতিবর্তন
• জেআইটি

ইংরেজি আর্টিকেল লিখে আয় করার ওয়েবসাইট

ইংরেজি লেখালেখিতে ভাল দক্ষতা থাকলে যোসব সাইট থেকে আয় করতে পারবেন –

• EH-writer
• Uxbooth.com
• Earth island journal
• Cracked.com
• Listverse.com

অফলাইনে হাতে লিখে আয় করার উপায়


পত্রিকায় লিখে আয়

আপনি যদি পত্রিকায় লিখে আয় করতে চান তাহলে বিভিন্ন পত্রিকায় আপনার লেখা পাঠাতে পারেন। দেশীয় সব পত্রিকাতে কিন্তু বাংলাতেই লেখা হয়। তাই বিভিন্ন জায়গা থেকে নতুন নতুন তথ্য কালেক্ট করে সেগুলো টাইপ করে নিউজপেপারে ছাপিয়ে আয় করতে পারেন।

পত্রিকায় লেখা পাঠানোর জন্য প্রথমে যে পত্রিকায় লেখা পাঠাতে চান, তার ইমেইল এড্রেস সংগ্রহ করতে হবে। এরপর লেখাটি ইমেইল করে পাঠাতে হবে। লেখার মান ঠিক থাকলে পরবর্তীতে তারাই আপনার সাথে লেখা প্রকাশনা নিয়ে যোগাযোগ করবে।

গল্প লিখে আয়

আপনি কি শখের বসে গল্প লিখেছেন কখনও? সেই গল্প দিয়েও কিন্তু আয় করা সম্ভব। পত্রিকা কিংবা ম্যাগাজিনেও ছাপাতে পারেন আপনার গল্প। এছাড়াও গল্প লিখে আয় করার বিভিন্ন ওয়েবসাইটও আছে, যেখানে আপনার গল্প গুলো পাবলিশ করে আয় করতে পারবেন।

— আমাদের শেষকথা —

ঘরে বসে হাতে লিখে মাসে ২০ হাজার টাকা বা তারও বেশী পরিমানে আয় করার ইচ্ছা থাকলে অনেক উপায়ই পেয়ে যাবেন। কিন্তু আপনার জন্য উপযুক্ত কোনটি তা কিন্তু আপনাকেই বাছাই করতে হবে। আপনার সুবিধার্থে লেখালেখি করে আয় করার যাবতীয় সব তথ্যই তুলে ধরা হয়েছে। তাই আর দেরি না করে সফল লেখক হিসেবে নিজের পরিচয় গড়ে তোলার চেষ্টা করুন ।

প্রয়োজন মনে হলে পড়ে দেখতে পারেন-

Similar Posts