Skip to content
Home » ডেভেলপারদের জন্য ১০টি সেরা কোড ইডিটর সফটওয়্যার

ডেভেলপারদের জন্য ১০টি সেরা কোড ইডিটর সফটওয়্যার

প্রতি বছরই নতুন নতুন কোড ইডিটর বাজারে আসছে। এতো ইডিটরের ভীড়ে ডেভেলপাররা নিজের জন্য সেরা কোড ইডিটর সফটওয়্যারটি বাছাই করতে যেয়ে দারুন সিদ্ধান্তহীনতায় ভোগে।

ডেভেলপিং বা প্রোগ্রামিং থেকে শত মাইল দূরে থাকা অনেকের কাছে মনে হতে পারে, কোড ইডিটর নিয়ে এতো আলোচনার কি দরকার, যেকোনো একটা ইন্সটল করে নিলেই তো হয়!

আসলে, যেকোনো ডেভেলপারের কাছেই ইডিটর খুব গুরুত্বপূর্ণ একটা ব্যাপার। কারণ এসব কোড ইডিটরের সামনেই তাকে বসে থাকতে হয় দিনের অধিকাংশ সময়।

তাই কোড ইডিটরের ফিচার এবং ডিজাইনকে ডেভেলপাররা মোটেও তুচ্ছ করে দেখে না।

এই আর্টিকেলে আমরা ১০টি সেরা কোড ইডিটরের সংক্ষিপ্ত বর্ননা উল্লেখ করবো।

বর্তমান সময়ের ১০টি সেরা কোড ইডিটর

এখানে যেসব কোড ইডিটরের নাম উল্লেখ করা হয়েছে, সেগুলো প্রত্যেকটিই অসাধারণ এবং সম্পূর্ণভাবে নিরাপদ। সম্ভব হলে প্রত্যেকটিই ব্যবহার করে দেখতে পারেন।

1. Nodepad++

File:Notepad++ Logo.svg - Wikimedia Commons

Platform: Windows

Price: Free

Nodepad++ জনপ্রিয় একটি ফ্রি কোড ইডিটর। এটি সি++ দ্বারা প্রোগ্রামিং করে তৈরী করা হয়েছে।

এই কোড ইডিটরটি “Win32 API” ব্যবহার করে, যার ফলে এতে লেখা কোডের এক্সিকিউশন স্পিড এবং প্রোগ্রামের সাইজও অনেক কম হয়।

Nodepad++ সফটওয়্যারটি শুধুই ইউন্ডোজেই ব্যবহার করা যায় এবং এটি ব্যবহার করতে GPL License লাগে।

Nodepad++ এর গুরুত্বপূর্ণ কিছু ফিচারঃ

  • এই কোড ইডিটরে বেশ কিছু ল্যাঙ্গুয়েজ (যেমনঃ পিএইচপি, জাভাস্ক্রিপ্ট, এইচটিএমএল, সিএসএস) এর ক্ষেত্রে সিন্ট্যাক্স হাইলাইটিং সাপোর্ট করে।
  • Auto-completion ফিচার হিসেবে Word completion এবং Function completion সিস্টেম আছে। অর্থাৎ আপনি কোনো শব্দ বা ফাংশনের আংশিক লিখলে বাকিটা সাজেশন হিসেবে সফটওয়্যারেও প্রদর্শিত হবে।
  • ম্যাক্রো লেভেল রেকর্ডিং এবং প্লেব্যাক সিস্টেম আছে।
  • ইউজারদের সুবিধার জন্য ফোল্ডিং সিস্টেম আছে।
  • কাস্টমাইজেবল জিইউআই।
  • একাধিক ভিউ এবং একাধিক ল্যাংগুয়েজ সাপোর্ট আছে।

ডাউনলোড লিংকঃ https://notepad-plus-plus.org

2. Atom

Atom

Platform: Windows, Mac, Linux

Price: Free

Atom এর অতি সাধারণ এবং জটিলতামুক্ত ইন্টারফেস থাকায় এটা অন্যান্য ইডিটরের তুলনায় খুবই উপকারী। অনেক প্রোগ্রামাররা নিজেদের পছন্দের কোড ইডিটর হিশেবে Atom কে বাছাই করেন।

Atom এর গুরুত্বপূর্ণ কিছু ফিচারঃ

  • এই সফটওয়্যারে প্লাগিন সাপোর্ট রয়েছে।
  • Smart Autocompletion সিস্টেম আছে।
  • কমান্ড প্লেট সাপোর্ট করে।
  • একাধিক panes বা ট্যাব চালু করা যায়।
  • এই সফটওয়্যারটি একটি cross-platform সফটওয়্যার। অর্থাৎ যেকোনো অপারেটিং সিস্টেমে এটি ব্যবহার করা যায়।

ডাউনলোড লিংকঃ https://atom.io/

3. Visual Studio Code (VS Code)

VisualStudioCode

Platform: Mac, Windows, Linux

Price: Free

Visual Studio Code হলো একটি Open Source কোড ইডিটর। মাইক্রোসফট কোম্পানী এটি ডেভেলপ করেছে। এই ফ্রি কোড ইডীটর সফটওয়্যারটিতে রয়েছে বিল্ট-ইন টাইপোস্ক্রিপ্ট, জাভাস্ক্রিপ্ট এবং নোডজেএস সাপোর্ট।

এর IntelliSense এবং অটো কমপ্লিশন ফিচারটি অন্য যেকোনো কোড ইডিটরের চেয়ে অনেক অনেক বেটার।

Visual Code Studio এর গুরুত্বপূর্ণ কিছু ফিচারঃ

  • Git এবং অন্যান্য সফটওয়্যার কনফিগারেশন ম্যানেজমেন্ট প্রোভাইডারের সাথে সহজেই কাজ করা যায়।
  • কোড রিফ্যাক্টরিং এবং ডিবাগিং করা যায়।
  • এই কোড ইডিটরের সমস্ত কিছু খুব সহজেই কাস্টমাইজ করা যায়।

ডাউনলোড লিংকঃ https://code.visualstudio.com

4. Webbuilder

Webuilder

Platform: Windows

Price: Paid

Webbuilder ডেভেলপারদের জন্য একটি শক্তিশালী, দ্রুত লোড নেয়া, বিশেষ বুদ্ধিমত্তাযুক্ত একটি কোড ইডিটর। এটি পিএইচপি দ্বারা তৈরী করা হয়েছে।

এই কোড ইডিটরটি বিভিন্ন ল্যাঙ্গুয়েজ (যেমনঃ এইচটিএমএল, সিএসএস, জাভাস্ক্রিপ্ট, পিএইচপি, রুবি, পাইথন, এএসপি, এসএসআই এবং পার্ল) দ্বারা তৈরীকৃত প্রজেক্ট তৈরী এবং ম্যানেজ করতে ব্যবহার করা হয়।

Webbuilder এর গুরুত্বপূর্ণ কিছু ফিচারঃ

  • Webbuilder একদম আপডেট এবং Advanced সব কোডিং ফিচার প্রোভাইড করে।
  • এই সফটওয়্যারের সাহায্যে একদম সরাসরি ওয়েব সার্ভারে কোডের ইডিটেড কপি পাবলিশ করা যায়।
  • এটি দিয়ে কোডের অটো কমপ্লিশন, সিনট্যাক্স চেক, ডিবাগ, বিউটিফাইসহ সবই করা যায়।
  • এই সফটওয়্যারে Snippet Library এবং code template আছে।

ডাউনলোড লিংকঃ www.webuilderapp.com

5. NetBeans

NetBeans

Platforms: Mac, Windows, Linux

Price: Free

NetBeans একটি ওপেন সোর্স কোড ইডিটর টুল। এটা দিয়ে জাভা থেকে শুরু করে পিএইচপি, সি++ এবং আরো অনেক প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজের কাজ করা যায়।

এই কোড ইডিটরকে কোড এ্যানালাইজার এবং কনভার্টার হিসেবে ব্যবহার করা যায়।

NetBeans এর গুরুত্বপূর্ণ কিছু ফিচারঃ

  • সহজেই প্রজেক্ট ম্যানেজমেন্ট করা যায়।
  • দ্রুত এবং স্মার্ট কোড ইডিটর হিসেবে পরিচিত।
  • রেপিড ইউজার ইন্টারফেস ডেভেলপমেন্ট
  • বাগফ্রি কোড লিখতে সাহায্য করে।

ডাউনলোড লিংকঃ https://netbeans.apache.org/

6. Dreamweaver

Dreamweaver

Platforms: Windows, Android & iOS

Price: 7 Days Free Trial, Plans starts from 20 dollars per month

এই কোড ইডিটরটি দিয়ে একটি ওয়েবসাইট তৈরী থেকে শুরু করে পাবলিশ এবং ম্যানেজ সবই খুব সহজেই করা যায়।

এখানে তৈরী করা ওয়েবসাইটটি যেকোনো ওয়েব সার্ভারে সরাসরি আপলোডও করা যায়।

Dreamweaver এর গুরুত্বপূর্ণ কিছু ফিচারঃ

  • ডাইনামিক ওয়েবসাইট খুব অল্প সময়ের ভেতর Dreamweaver ব্যবহার করে ডেভেলপ করা যায়।
  • অনেক সময় ওয়েবসাইট তৈরী করার পর বিভিন্ন ডিভাইসের নানান সাইজের স্ক্রিনে ওয়েবসাইটটি বিভিন্নভাবে প্রদর্শিত হয়। এই ইডিটরের মাধ্যমে এই সমস্যার সমাধান করা সহজ।
  • এখানে ওয়ার্কস্পেস সম্পুর্ণভাবে কাস্টমাইজ করে ব্যবহার করা যায়।
  • এই কোর্ড ইডিটরে ইন-বিল্ট এইচটিএমএল ভ্যালিডেটর আছে, যা দিয়ে কোড ভ্যালিডেট করা যায়।
  • রিয়েল টাইম কলাবরেশন, লাইভ পেজ প্রিভিউ, ড্রাগ এন্ড ড্রপ ইডিটর সুবিধা আছে।
  • জিডিপিআর এর মতো কমপ্লাইন্স সাপোর্ট আছে।
  • দারুন কিছু টুলস বা প্লাগইন আছে।
  • শুধু এইচটিএমএল, সিএসএস এবং জাভাস্ক্রিপ্টের মতো ওয়েব ডেভেলপিং ল্যাঙ্গুয়েজ লেখার ক্ষেত্রে করা যায়।
  • রেডিমেড ব্লগ, ইকমার্স, নিউজলেটার এবং পোর্টিফোলিও সাইট আছে এখানে।

ডাউনলোড লিংকঃ https://www.adobe.com/products/dreamweaver.html

7. Bluefish

Bluefish

Platforms: Windows, Mac, Linux

Price: Free

এটি একটি ক্রস প্লাটফর্ম কোড ইডিটর। অর্থাৎ সব অপারেটিং সিস্টেমেই এটি ব্যবহার করা যায়। রিমোট ইডিটিং এর জন্য Bluefish সেরা একটি চয়েজ হতে পারে।

Bluefish নামের এই কোড ইডিটরের সেরা কিছু ফিচারঃ

  • এটা Mac ইউজারদের জন্য সেরা IDE, যেটা মাত্র কয়েক সেকেন্ডের ভেতর শত শত ফাইল লোড নিতে পারে।
  • কোড লিখতে লিখতে পিসি শাটডাউন, ক্রাশ বা হ্যাং হয়ে গেলেও লিখে ফেলা ফেলা কোডের একটা শব্দও হারিয়ে যাবে না।
  • একসাথে অনেক প্রজেক্ট নিয়ে কাজ করা যায়।
  • আনলিমিটেড বার undo/redo করা যায়।

ডাউনলোড লিংকঃ http://bluefish.openoffice.nl/index.html

8. VIM

VIM

Platform: Linux

Price: Free

এটি মূলত একটি এ্যাডভান্স লেভেলের টেক্সট ইডিটরের ওপেন সোর্স টুল, যেটাকে IDE হিসেবেও ব্যবহার করা হয়।

Vim নামের এই কোড ইডিটরের সেরা কিছু ফিচারঃ

  • অত্যন্ত হেল্পফুল প্লাগিন সাপোর্ট।
  • শক্তিশালী সার্চ এবং রিপ্লেস সিস্টেম।
  • বিভিন্ন ধরণের টুলস এর সমাহার।
  • ম্যাক্রো রেকর্ডিং এবং প্লেব্যাক।
  • শতখানেক প্রোগ্রামিং ল্যাংগুয়েজ সাপোর্ট করে এবং বহু ফাইল ফরমেট রয়েছে।

ডাউনলোড লিংকঃ https://www.vim.org/

Geany

Platforms: WIndows, Mac, Linux

Price: Free

Geany এমন একটি কোড ইডিটর যেটি GTK+ টুলকিট ব্যবহার করে। এই কোড ইডিটরটিতে অনেক সুযোগ-সুবিধা আছে, যেগুলো অন্য কোনো কোড ইডিটরে ফ্রিতে পাওয়া যায় না।

Geany এর গুরুত্বপূর্ণ কিছু বৈশিষ্ট হলোঃ

  • ইনডেন্ট সিস্টেম আছে এবং সেখানে নোট ব্যবহার করা যায়।
  • বিভিন্ন ওয়েবসাইটের সোর্স কোড দেখা যায়।
  • গুরুত্বপূর্ণ বিভিন্ন টুলস।

ডাউনলোড লিংকঃ https://www.geany.org

10.  TextMate

TextMate

Platforms: Mac

Price: Free

ম্যাক ইউজারদের জন্য এটি একটি অসাধারণ কোড ইডিটর। এখানকার ফিচার এবং ডিজাইন অন্য কোড ইডিটরগুলোর তুলনায় অনন্য।

TextMate এর গুরুত্বপূর্ণ কিছু ফিচার হলোঃ

  • স্বয়ঙ্গক্রিয় ইনডেন্ট সিস্টেম।
  • সিএসএস এর মতো সিলেক্টর যেটা দিয়ে বিভিন্ন এ্যাকশন এবং সেটিংস খুব সহজেই খুঁজে নেয়া যায়।
  • একাধিক ফাইল নিয়ে কাজ করার জন্য ডাইনামিক আউটলাইন।
  • ডকুমেন্টের ভেতর শেল কমান্ড রান করা যায়।
  • একটা ফাইলের বিভিন্ন স্থানে যাওয়ার জন্য ভিজুয়্যাল বুকমার্ক সেট করা যায়।

ডাউনলোড লিংকঃ http://macromates.com/

শেষ কথা

আশা করি এগুলোর ভেতর থেকেই আপনি নিজের জন্য সেরা কোড ইডিটরটি খুঁজে পাবেন। জনপ্রিয় এবং সেরা সবগুলো কোড ইডিটর নিয়েই এখানে আলোচনা করা হয়েছে।

আমার কাছে ব্যক্তিগত ভাবে VSCode বা Visual Code Studio নামের এই কোড ইডিটরটি বেশি ভালো লাগে। কারণ এই একটা কোড ইডিটরের ভেতর সব ধরণের টুলস পাওয়া যায় এবং এর ইন্টারফেসও অসাধারণ।

আপনার কাছে কোন কোড ইডিটরটিকে সেরা মনে হয়, কমেন্টে তা জানাবেন এবং ভালো থাকবেন।